রুবায়েত হোসেন, খুবি প্রতিনিধি :
করোনায় থমকে গেছে গোটা বিশ্ব। মানুষের জীবণযাত্রা ব্যাহত হচ্ছে প্রতিনিয়ত। কিন্তু বাংলাদেশের মানুষের মড়ার ওপর খাড়ার ঘা হয়ে এসেছে বন্যা। সাতক্ষীরার আশাশুনি উপজেলার প্রতাপনগরের অধিকাংশ মানুষই এখন বন্যা কবলিত। একদিকে করোনা অন্যদিকে বন্যা বর্তমানে তারা হয়ে পড়েছে অনেক অসহায়। মানবেতর জীবণযাপন করতে হচ্ছে তাদের। এ অবস্থায় তাদের পাশে এসে দাড়িয়েছে বাঁধন, খুলনা বিশ্ববিদ্যালয় ইউনিট।

গতকাল বৃহস্পতিবার সাতক্ষীরার আশাশুনি উপজেলার প্রতাপনগর গ্রামের বন্যা কবলিত মানুষের মাঝে বিন্যামূল্যে চিকিৎসা সেবা প্রদান করে বাঁধন, খুলনা বিশ্ববিদ্যালয় ইউনিট।

প্রায় ৩৫০ জন বন্যা কবলিত মানুষের মাঝে তারা বিনামূল্যে ঔষধ,বিশুদ্ধ খাবার পানি,স্যালাইন ও সাধারণ চিকিৎসা প্রদান করেন। সার্বক্ষণিক তিনজন চিকিৎসক বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা প্রদান করেন। এছাড়া তারা বানভাসি মানুষের মাঝে মাস্কও বিতরণ করেন। বিশুদ্ধ খাবার পানি ও স্যালাইন দিয়ে সহায়তা করেন এসএমসি গ্রুপ।

বাঁধন, খুলনা বিশ্ববিদ্যালয় ইউনিটের সভাপতি নিলয় কুমার সরকার বলেন, বাঁধন খুলনা বিশ্ববিদ্যালয় ইউনিট সব সময়ই সামাজিক দায়বদ্ধতা থেকে কাজ করে আসছে। বানভাসী প্রতাপনগরের এ মানুষদের এখন যে পরিমান সাহায্যের প্রয়োজন, আমাদের সীমাবদ্ধতার মাঝে হয়তো তার খুব ছোট একটি অংশ পুরন করতে পেরেছি। দেশের উর্ধতন কর্তৃপক্ষের কাছে দৃষ্টি আকষর্ণ করছি যেনো তারা দ্রুত প্রতাপনগরের বানভাসী মানুষের পাশে এসে দাঁড়ায়।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *