ছাত্রাবাসে গণধর্ষণ: ছাত্রলীগ কর্মী তারেকও ৫ দিনের রিমান্ডে

সিলেটের এমসি কলেজের ছাত্রাবাসা স্বামীকে আটকে রেখে স্ত্রীকে গণধর্ষণের মামলার ২নং আসামি ছাত্রলীগের কর্মী তারেক ইসলাম তারেককে ৫ দিনের রিমান্ডে পাঠিয়েছেন আদালত।

আজ (বুধবার) বিকালে সিলেটের চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে তাকে হাজির করে সাত দিনের রিমান্ড আবেদন করে পুলিশ। শুনানি শেষে বিচারক আবুল কাশেম তাঁর পাঁচ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন। এর আগে দুপুরে গণধর্ষণের ঘটনায় গ্রেফতার ছাত্রলীগ কর্মী মাহফুজুর রহমান মাসুমেরও ৫ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন আদালত।

রিমান্ডের বিষয়টি নিশ্চিত করে আদালতের সরকারি কৌঁসুলি (পিপি) সৈয়দ শামীম আহমদ জানান, রিমান্ড আবেদন শুনানিতে অন্য আসামিদের মতো তারেকুলের পক্ষেও কোনো আইনজীবী অংশ নেননি। বাদীপক্ষে স্বতঃপ্রণোদিত হয়ে শতাধিক আইনজীবী অংশ নিলেও আসামিপক্ষে কোনো আইনজীবী অংশ নেননি।

পুলিশ জানায়, ধর্ষণকাণ্ডে জড়িত ব্যক্তিদের মধ্যে সর্বশেষ পর্যায়ে র‌্যাবের হাতে ধরা পড়েন তারেকুল। তিনি গ্রেপ্তার এড়াতে চুল–দাড়ি ফেলে সুনামগঞ্জের দিরাইয়ে এক আত্মীয়ের বাড়িতে আশ্রয় নিয়েছিলেন। গতকাল মঙ্গলবার সন্ধ্যায় তাঁকে গ্রেপ্তার করা হয়। বুধবার সকালে তাঁকে শাহপরান থানায় সোপর্দ করে র‌্যাব।

দেশজুড়ে “নিজের বলার মত একটা গল্প ফাউন্ডেশন” এর এক হাজারতম দিন উদযাপন

অনলাইনে প্রতি ৯০ দিনে নির্দিষ্ট বিষয়ে উদ্যোক্তা তৈরীর লক্ষ্যে ১১টা ব্যাচে চারলক্ষ মানুষকে সম্পূর্ন বিনামূল্যের প্রশিক্ষন প্লাটফর্ম “নিজের বলার মত একটা গল্প ফাউন্ডেশন” এর একহাজারতম দিন পূর্তির আয়োজন অনুষ্ঠিত হলো দেশজুড়ে। দেশের ৬৪টি জেলার পাশাপাশি পৃথিবীর ৫০ টি দেশে সংগঠনটির উদ্যোক্তা প্রশিক্ষনার্থীরা একযোগে দিনটি পালন করেন। কেন্দ্রীয়ভাবে ঢাকার কচিকাঁচার আসর মিলনায়তনে এক অনুষ্ঠানে প্রতিষ্ঠানটির প্রতিষ্ঠাতা ও প্রেসিডেন্ট ইকবাল বাহার জাহিদের সভাপতিত্বে অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন আইপিডিসি ফাইন্যান্সের সিইও মমিন ইউ ইসলাম, বাংলাদেশ এসোসিয়েশন অফ কল সেন্টার এন্ড আউটসোর্সিং এর জেনারেল সেক্রেটারী তৌহিদ হোসেন, ব্যারিস্টার সায়েদুল হক সুমনসহ নানা পর্যায়ের গুনীজনেরা।

এছাড়া দিবসটিকে কেন্দ্র করে ঢাকার আয়োজনে শুভেচ্ছা জানাতে হাজির হন সংগঠনটির উপদেষ্টা পর্ষদ, দেশের টেক প্রতিষ্ঠানগুলোর কর্নধার, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক বিভিন্ন সংগঠনের কর্মী, সাংবাদিক, নিজের বলার মত একটা গল্প প্লাটফর্মের সফল কয়েকজন উদ্যোক্তা, ঢাকা জেলার ভলান্টিয়ার টিম সহ আমন্ত্রিত অতিথিরা। দেশের বিভিন্ন জেলার আয়োজনে ডিসি, ইউএনও, সমাজসেবা অধিদপ্তরের কর্মকর্তা, সমাজের গনমান্য ব্যক্তিরা অংশ নেন।

একটা ভিন্ন আয়োজন ছিলো অনুষ্ঠানে ,বাংলাদেশের ৮ টি বিভাগ থেকে ১৪ জন তরুণকে যাদের আর্থিক অবস্থা ভালো নয় কিন্তু উদ্যোক্তা হবার স্বপ্ন দেখে, তাঁদেরকে এই প্লাটফর্মের ১৪০ জন উদ্যোক্তারা মিলিতভাবে ১৪ জনের প্রত্যেকে ২০,০০০ টাকার পণ্য ৬ মাসের জন্য বাকিতে দিয়েছেন তাদের উদ্যোক্তা স্বপ্ন পূরনের জন্য।

প্রতিষ্ঠানটির সংবাদ তথ্যবিবরণীতে জানা যায়, চার লক্ষ তরুণকে ফ্রী প্রশিক্ষণ কর্মশালার টানা ১০০০ দিনের ইতিহাস গড়েছেন “নিজের বলার মত একটা গল্প” ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা ইকবাল বাহার। শুধু বাংলাদেশে নয়, পুরো পৃথিবীতে কেউ কোন দিন টানা ১০০০ দিন প্রতিদিন নির্দিষ্ট কন্টেন্ট দিয়ে কোন ট্রেনিং কর্মশালা ফ্রিতে করেনি ! আজ ৩০ শে সেপ্টেম্বর তার এই অনলাইন প্রশিক্ষণের একহাজারতম দিন পূর্ণ হলো।
“নিজের বলার মতো একটা গল্প” উদ্যোক্তা হবার প্রশিক্ষন, ১০টি বিষয়ে স্কিলস শেখানো ও মূল্যবোধ সংক্রান্ত অনলাইন প্রশিক্ষণ কর্মশালার প্লাটফর্ম। মাত্র ১৬৪ জন তরুণদের নিয়ে এই সামাজিক ও শিক্ষামুলক কাজের উদ্যোগ ২ বছর ৯ মাস আগে শুরু হলেও তারা সাতহাজারের বেশী মানুষকে উদ্যোক্তা হিসেবে তৈরী করেছে। একটি দিনের জন্যেও বন্ধ ছিলোনা তাদের এই প্রশিক্ষন।

ইকবাল বাহার জাহিদ বলেন, “বাংলাদেশের ৬৪ জেলা ও ৫০টি দেশের প্রবাসী বাংলাদেশী সহ মোট ৪০০,০০০ তরুণ-তরুণীদেরকে 11টি ব্যাচের মাধ্যমে ৩৬০ টা কন্টেন্ট দিয়ে টানা ৯০ দিন করে বিনামূল্যে অর্থাৎ কোন ফি ছাড়া উদ্যোক্তা বিষয়ক, মূল্য বোধ, ভলান্টিয়ারিং ও ১০ টি স্কিলস নিয়ে প্রশিক্ষণ দেয়া হয়েছে আমাদের প্লাটফর্ম থেকে। প্রতি সপ্তাহে মিটআপের মধ্য দিয়ে চলছে আর অফলাইন কার্যক্রমও, গত আড়াই বছরে সারা দেশে ও বিদেশে প্রায় ১২০০ অনলাইন ও অফলাইন মিট আপ অনুষ্ঠিত হয়েছে। বেতিক্রমী এই উদ্যোগের সাথে আমরা এনেছি দেশের এই প্রথম ৬৪ জেলা নিয়ে শুরু হয়েছে “নিজের বলার মতো একটা গল্প” প্লাটফর্মের “সাপ্তাহিক অনলাইন হাট” – প্রতি মঙ্গলবার, সকাল ৯ টা থেকে রাত ৯ টা – টানা ১২ ঘণ্টা।

করোনার এই ভয়াবহ সময়ে যখন সবাই তাঁদের বিজনেস নিয়ে চিন্তিত, অনেকের সেল প্রায় বন্ধ তখন “নিজের বলার মতো একটি গল্প” গ্রুপের মাধ্যমে তৈরী দুলক্ষ মানুষকে আমাদের ফেসবুক গ্রুপে অপার সুযোগ ও সম্ভাবনা, আবার ঘুরে দাঁড়ানোর ! একই সঙ্গে সুযোগ করে দিল ক্রেতাদের জন্য অনলাইনে কেনাকাটার। “আমরাই ক্রেতা আমরাই বিক্রেতা” এই স্লোগানে বেশ জমে উঠেছে এই অনলাইন হাট। নিজের বলার মতো একটা গল্প উদ্যোক্তা তৈরির পাশাপাশি করে যাচ্ছে মানবিক কাজও; যেমন অসহায় গৃহহীনকে ঘর বানিয়ে দেয়া, কিছু গরীব তরুনদের আর্থিক মূলধন দিয়ে সহায়তা করা, ৩৫০০ বন্যা কবলিত পরিবারের পাশে দাঁড়ানো, করোনা কালে ৮০০০ অসহায় মানুষের পাশে থাকা, ২০,০০০ ব্যাগ রক্ত প্রদান করা, সারা দেশে ৩৫,০০০ বৃক্ষরোপনের মাধ্যমে সবুজায়ন করা, ১৫০০০ এতিম-অসহায় শিশু ও বৃদ্ধকে ১ বেলা খাবারের ব্যবস্থা করা, ৪০০০ শীতার্তদের মাঝে কম্বল বিতরণের ব্যবস্থা করা সহ নানান উদ্যোগের মাধ্যমে

আর্মেনিয়া-আজারবাইজান যুদ্ধ: লাশের মিছিল দীর্ঘ হলেও কমছে না তীব্রতা

বিতর্কিত কারবাখ ভূখণ্ড নিয়ে আর্মেনিয়া ও আজারবাইজানের মধ্যকার চলমান যুদ্ধের আগুন কমার কোনো সম্ভাবনা এখনও দেখা দেয়নি। শতাধিক মানুষ মারা গেলেও এখনও কেউ বসছে না আলচনায়।

আজারবাইজানের দাবী, আর্মেনিয়ার হামলায় তাদের অন্তত ১২ জন বেসামরিক ব্যক্তি প্রাণ হারিয়েছে। আহত হয়েছে ৩৫ জন। তারা সামরিক ক্ষয়ক্ষতির বিবরণ প্রকাশ করেনি।

পাশপাশি আর্মেনিয়ার প্রধানমন্ত্রী বলছেন, আজারবাইজানের সশস্ত্র বাহিনীর হামলায় তাদের সামরিক ও বেসামরিক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। অনেকেই প্রাণ হারিয়েছে। সেখানে ৮৪ জন সেনা প্রাণ হারিয়েছে।

সংঘর্ষে উভয় পক্ষেরই ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হলেও দুই দেশই আলোচনায় বসার সম্ভাবনা নাকচ করেছে। আজারবাইজানের প্রেসিডেন্ট ইলহাম আলিয়েভ রাশিয়ার রাষ্ট্রীয় টিভি চ্যানেলকে দেওয়া সাক্ষাতকারে বলেছেন, তারা আর্মেনিয়ার সঙ্গে কোনো আলোচনা করবেন না।

চট্টগ্রাম বন্দরে খালাস হলো পাকিস্তান থেকে আসা ১৭৫ টন পিঁয়াজ

দেশের বাজারে পিঁয়াজের সংকট ও দর কমাতে ব্যবসায়ীদের আমদানিকৃত পিঁয়াজ একে একে আসতে শুরু করেছে চট্টগ্রাম বন্দরে। আজও (বুধবার) পাকিস্তান থেকে আসা ১৭৫ টন পিঁয়াজ খালাস করা হয়েছে।

ভারতের বিকল্প হিসাবে অন্তত ১২টি দেশের পিঁয়াজে দেশের বাজার সয়লাব হয়ে যাবে বলে ধারণা করছেন দেশের পাইকারি ও খুচরা ব্যবসায়ীরা। এছাড়া বাংলাদেশ ট্রেডিং করপোরেশনের (টিসিবি) ট্রাকগুলোতেও এখন মিলবে দেশি পিঁয়াজ।

টিসিবির চট্টগ্রাম আঞ্চলিক প্রধান জামাল উদ্দিন আহমদ জানান, এখন থেকে টিসিবির ট্রাকে দেশি পিঁয়াজ বিক্রি হবে ভোক্তা পর্যায়ে প্রতি কেজি ৩০ টাকা। নগরের বিভিন্ন স্পটে ২০টি ট্রাকে পিঁয়াজ, চিনি, সয়াবিন তেল, মশুর ডাল বিক্রি হচ্ছে। প্রতিটি ট্রাকে ২০০ কেজি পিঁয়াজ দেওয়া হচ্ছে।

এদিকে চট্টগ্রাম সমুদ্রবন্দরের উদ্ভিদ সংগনিরোধ কেন্দ্রের উপ-পরিচালক ড. মোহাম্মদ আসাদুজ্জামান বুলবুল জানান, মিয়ানমার ও পাকিস্তান থেকে আসা ১৭৪ টন পিঁয়াজের ছাড়পত্র ইস্যু করেছি আমরা। এ কেন্দ্র থেকে ১ লাখ ৪৭ হাজার ৫৫৪ টন পিঁয়াজ আমদানির জন্য ৩২২টি অনুমতিপত্র (আইপি) নিয়েছেন ব্যবসায়ীরা। চীন, মিশর, তুরস্ক, মায়ানমার, নিউজিল্যান্ড, নেদারল্যান্ডস, মালয়েশিয়া, সাউথ আফ্রিকা, ইউক্রেন, সংযুক্ত আরব আমিরাত (ইউএই), ভারত (২০০ টন) ও পাকিস্তান- এ ১২ দেশ থেকে এসব পেঁয়াজ আনবেন তারা।

ভারতে তৈরি ভ্যাকসিনের দাম ২৫০ টাকা

করোনা ভ্যাকসিনের মূল্য নির্ধারণ করেছে ভারতের সিরাম ইনস্টিটিউট। তাদের প্রতি ডোজ ভ্যাকসিনের মূল্য ধরা হয়েছে ৩ ডলার (প্রায় ২৫০ টাকা)। দরিদ্র দেশের সাধারণ মানুষ যাতে সহজে ভ্যাকসিন পেতে পারে, সেজন্য অল্প মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে বলে জানিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি।

তবে ভ্যাকসিনের মান নিয়ে আপস করা হবে না বলে জানিয়েছেন সিরাম ইনস্টিটিউটের কর্মকর্তারা। একইসঙ্গে মাঝারি এবং নিম্ন আয়ের দেশগুলোর জন্য অতিরিক্ত দশ কোটি ডোজ করোনা ভ্যাকসিন উৎপাদনের কথা জানানো হয়েছে।

করোনা ভ্যাকসিন উদ্ভাবনের কথা জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের ওষুধ প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠান ইনোভিও। এরইমধ্যে মানবদেহে ডিএনএভিত্তিক এ ভ্যাকসিনের প্রথম ট্রায়াল শেষ হয়েছে। ৩৬ জন স্বেচ্ছাসেবীর মধ্যে ৩৪ জনের দেহেই রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বেড়েছে। অন্যদিকে কারো শরীরে পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া দেখা যায়নি বলে দাবি করা হয়েছে।

এদিকে জার্মানির সংক্রমণ গবেষণা কেন্দ্র জানিয়েছে, গুটি বসন্তের ভ্যাকসিনের কিছু সংশোধন করে তা করোনা ভ্যাকসিনের জন্য নিবন্ধন পেয়েছে তারা। এরইমধ্যে মানবদেহে প্রথম ট্রায়ালের অনুমতি পেয়েছে সংস্থাটি। খুব শিগগিরই ভ্যাকসিনটি প্রথম দফার পরীক্ষা শেষ করে দ্বিতীয় পরীক্ষা শুরু করা হবে বলে জানানো হয়েছে।

বিশ্বে এখন পর্যন্ত মানবদেহে ৪৩টি ভ্যাকসিনের ক্লিনিক্যাল ট্রায়াল চলছে। যার মধ্যে ১১টি রয়েছে তৃতীয় স্তরে। আর দ্বিতীয় পর্যায়ের পরীক্ষা চলছে ১৪টি ভ্যাকসিনের। সীমিত পরিসরে ব্যবহারের জন্য অনুমতি পেয়েছে ৫টি। এছাড়াও বিভিন্ন দেশের বিজ্ঞানী এবং গবেষকরা প্রাণি দেহে পরীক্ষা চালাচ্ছে শতাধিক ভ্যাকসিনের।

মিন্নির যত সমালোচনা

বরগুনার বহুল আলোচিত রিফাত শরীফ হত্যা মামলার বাদী থেকে আসামি হয়ে যাওয়া আয়শা সিদ্দিকা মিন্নিসহ ছয়জনের ফাঁসির আদেশ দিয়েছেন আদালত। নানা কারণেই মিন্নি বরাবরই আলোচিত এবং সমালোচিত হয়েছেন।

২০১৯ সালের ১ সেপ্টেম্বর রিফাত হত্যাকাণ্ডের দুই খণ্ডের ১২৩২ পৃষ্ঠার যে অভিযোগপত্র আদালতে জমা দেন তদন্তকারী কর্মকর্তা মো. হুমায়ূন কবির, তাতে মিন্নির কর্মকাণ্ডই বর্ণনা করা হয়েছিল ৩২ পৃষ্ঠাজুড়ে। জমা দেয়া ওই অভিযোগপত্রে কেন হত্যার পরিকল্পনা, কোথায়-কীভাবে তা করা হয়েছে, পরিকল্পনার বাস্তবায়ন ও হত্যার আগে-পরে পরিকল্পনা বাস্তবায়নকারীদের সঙ্গে মিন্নির যোগাযোগের বর্ণনা দেয়া হয়েছে।

অভিযোগপত্রে বলা হয়, রিফাত শরীফ হত্যাকাণ্ডের মূল কারণ ছিল নয়ন বন্ডের জন্মদিনে মিন্নির অংশগ্রহণ ও নয়নের মুখে মিষ্টি তুলে দেয়া। বরগুনা ইউটিডিসি সরকারি মডেল প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে নয়ন বন্ড জন্মদিন উদযাপন করে। ওই অনুষ্ঠানে মিন্নি ছিলেন প্রধান মেহমান। জন্মদিনের ওই অনুষ্ঠানের ভিডিও করেন নয়ন বন্ডের ঘনিষ্ঠ বন্ধু হেলাল শিকদার। ওই ভিডিওতে দেখা গেছে, মিন্নি নয়ন বন্ডকে মিষ্টি খাইয়ে দিচ্ছেন। ভিডিওটি হেলাল শিকদার অনলাইনে ছেড়ে দিলে রিফাত শরীফ ক্ষুব্ধ হন।

২৪ জুন বেলা সাড়ে ১১টায় রিফাত শরীফ বরগুনা জিলা স্কুল মাঠে ডেকে নিয়ে এ বিষয়ে হেলাল শিকদারকে জিজ্ঞাসা করেন। একপর্যায়ে হেলালের একটি ওয়ালটন মোবাইল ফোন রিফাত শরীফ কেড়ে নেন।

পরে নয়ন বন্ড ওই মোবাইল ফোনটি মিন্নিকে উদ্ধার করে দিতে বলেন। মিন্নি ওই মোবাইল ফোনটি রিফাতের কাছ থেকে কেড়ে নিতে গেলে ঝগড়া শুরু হয়। এক পর্যায়ে মিন্নির গায়ে হাত তোলেন রিফাত। গায়ে হাত তোলায় ক্ষুব্ধ হয় মিন্নি। সেই ঘটনার প্রতিশোধ নিতেই নয়ন বন্ডের সঙ্গে মিন্নি রিফাতকে হত্যার পরিকল্পনা করে বলে তদন্তে উল্লেখ করা হয়।

জানা যায়, মিন্নি রিফাতকে বিয়ের আগে বিয়ে করেছিলেন নয়ন বন্ডকে। নয়ন বন্ড স্বামী থাকা অবস্থাতেই রিফাতকে বিয়ে করেন মিন্নি। রিফাত শরীফের সাথে মিন্নির বিয়ের পরের দিন মিন্নির বাবা কাজীকে ফোনে বলেন, মিন্নি ও নয়ন বন্ড কাল তার কাছে যাবে। আপনি ওদের ডিভোর্স করিয়ে দিয়েন।

মিন্নি ও নয়ন বন্ডের নামে একটি আপত্তিকর ভিডিও বিভিন্ন পর্নসাইটে ছড়িয়ে পড়ে। পর্নসাইট ছাড়াও ওই ভিডিওটির অংশবিশেষ (কাটপিস) সামাজিকমাধ্যম ইউটিউব ও ফেসবুকেও শেয়ার করা হয়।

গণমাধ্যমের খবরে উঠে এসেছে, মিন্নি বলেছেন, নয়নের সঙ্গে তার অনৈতিক সম্পর্ক ছিল এবং নয়ন মাঝে-মধ্যে দু’জনের একান্ত সময়ের ভিডিও ও ছবি ধারণ করতেন।

উল্লেখ্য, রিফাত শরীফ হত্যাকান্ডের পর নয়ন বন্ড বন্দুকযুদ্ধে নিহত হন।

আগামী সপ্তাহে এইচএসসির রুটিন

আগামী সপ্তাহে উচ্চ মাধ্যমিক তথা এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষার রুটিন প্রকাশ করা হবে। পরীক্ষার প্রস্তুতি সম্পন্ন করতে শিক্ষার্থীদের চার সপ্তাহ সময় দেয়া হবে। তবে কোনো শিক্ষার্থী বিশেষ কারণে পরীক্ষা দিতে না পারলে তার জন্য বিশেষ ব্যবস্থা রাখা হবে।

বুধবার (৩০ সেপ্টেম্বর) সাংবাদিকদের সঙ্গে শিক্ষা বিষয়ক এক (ভার্চুয়াল) সভায় শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি এমন কথাই জানিয়েছেন।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী, মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের সচিব মাহাবুব হোসেন, কারিগরি ও মাদরাসা বিভাগের সচিব মো. আমিনুল ইসলাম খান, মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদফতরের মহাপরিচালক অধ্যাপক সৈয়দ গোলাম ফারুক।

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, ‘পরীক্ষা না নিয়ে আগের পরীক্ষার মাধ্যমে মূল্যায়ন করে সার্টিফিকেট প্রদান করার প্রস্তাব করছেন অনেকে। এটিকেও আমরা গুরুত্ব দিচ্ছি, এটি একটি প্রস্তাব হতে পারে। তবে পরীক্ষা ছাড়া সার্টিফিকেট দিলে তারা যখন চাকরি নিতে যাবে তখন তাদের বলা হবে, ‘ও তোমরা ২০২০ সালের পরীক্ষা ছাড়া পাস করা ব্যাচ।’ এমন পরিস্থিতি তৈরি না করতে আমরা পরীক্ষা নেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছি।’

তিনি বলেন, ‘কবে থেকে এইচএসসি-সমমান পরীক্ষা শুরু হবে তা আগামী সপ্তাহের সোম অথবা মঙ্গলবার সাংবাদিকদের কাছে তুলে ধরা হবে। পরীক্ষা আয়োজনে প্রশ্ন, উত্তরপত্র তৈরিসহ সব প্রস্তুতি আমাদের রয়েছে। এখন শুধু পরীক্ষা শেষ করা বাকি রয়েছে। পরীক্ষা দিতে গিয়ে যাতে কারও ক্ষতি না হয় সে বিষয়টি আমরা গুরুত্ব দেব। বিশেষ কারণে কোনো শিক্ষার্থী পরীক্ষা দিতে না পারলে আমরা দ্রুত সময়ের মধ্যে তার পরীক্ষা নেব।’

তবে এবার সব বিষয়ের পরীক্ষা না নিয়ে মৌলিক বিষয়ের ওপর গুরুত্ব দেয়া হবে। কোন কোন বিষয়ের পরীক্ষা নেয়া হবে সেটি আগামী সপ্তাহে ঘোষণা করা হবে। এ ক্ষেত্রে কেউ যদি বিশেষ কারণে পরীক্ষা দিতে না পারে তবে তার জন্য বিকল্প ব্যবস্থা রাখা হবে। সব কিছু আগামী সপ্তাহে ঘোষণা করা হবে বলে জানান শিক্ষামন্ত্রী।

বাবরি মসজিদ রায়ের বিরুদ্ধে হাইকোর্টে যাবে মুসলিম ল’ বোর্ড

ভারতে ঐতিহাসিক বাবরি মসজিদ ধ্বংস মামলায় সব আসামিকে খালাস দেয়ায় এ রায়ের বিরুদ্ধে হাইকোর্টে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে অল ইন্ডিয়া মুসলিম পার্সোনাল ল’ বোর্ড।

বোর্ডের সিনিয়র আইনজীবী জাফারইয়াব জিলানি বলেন, বাবরি মসজিদ ধ্বংস হওয়ার দিন কীভাবে অভিযুক্তরা মঞ্চ থেকে উস্কানিমূলক ভাষণ দিচ্ছিলেন প্রত্যক্ষদর্শীরা তা জানিয়েছেন । আইপিএস অফিসার ও সাংবাদিকরাও এ বিষয়ে বর্ণনা দিয়েছেন।

জিলানি বলেন, বিশেষ সিবিআই আদালত তথ্য প্রমাণকে উপেক্ষা করে রায় দিয়েছে। তাই এর বিরুদ্ধে মুসলমানরা আপিল করবে। মুসলিম ল’ বোর্ডও আপিল করতে পারে বলে ইঙ্গিত দেন তিনি।

১৯৯২ সালের ৬ ডিসেম্বর বাবরি মসজিদ ধ্বংস করেছিল উগ্রপন্থী হিন্দু কর সেবকরা।

প্রবীণ বিজেপি নেতা লালকৃষ্ণ আদভানি, মুরলিমনোহর জোশী, উমা ভারতীর মতো নেতানেত্রীদের বিরুদ্ধে মসজিদ ভাঙার ষড়যন্ত্র, পরিকল্পনা ও উসকানির অভিযোগ আনা হয়।

প্রায় তিন দশক ধরে চলে আসা বাবরি মসজিদ ধ্বংস মামলায় অভিযুক্ত সবাইকে খালাস দিয়ে বিচারক বলেন, প্রথমত মসজিদ ধ্বংসের ঘটনা ‘পূর্বপরিকল্পিত ছিল না’।

তা ছাড়া আসামিদের বিরুদ্ধে যথেষ্ট তথ্যপ্রমাণের অভাব, কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা সিবিআই যেসব অডিও এবং ভিডিও আদালতে জমা দিয়েছে, সেসবের সত্যতা প্রমাণ করা যায়নি।

বাবরি মসজিদ ভাঙতে যাওয়া সমাজবিরোধীদের বাধা দিতে গিয়েছিলেন আসামিরা এবং আসামিরা মসজিদ ভাঙার সময় যেসব বক্তব্য দিয়েছেন, তা স্পষ্ট বোঝা যায়নি।

প্রায় ২৮ বছর আগের ওই ঘটনা চিরকালের মতো বদলে দিয়েছিল ভারতের সামাজিক ও রাজনৈতিক গতিপথ। এ নিয়ে ভারতে রীতিমতো হিন্দু-মুসলিম দাঙ্গায় মারা যায় প্রায় দুই হাজার মানুষ।